দাম্পত্য টিকিয়ে রাখার মন্ত্র বললেন ঐশ্বরিয়া - Alochitobangladesh
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২ । ১৬ আশ্বিন ১৪২৯
Dating App

দাম্পত্য টিকিয়ে রাখার মন্ত্র বললেন ঐশ্বরিয়া

অনলাইন ডেস্ক »

তারকা জুটির একসঙ্গে থাকার নজির যেখানে তলানির দিকে, সেখান উদাহরণ হতে পারে বচ্চন পরিবার। ১৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে সুখী দাম্পত্যে রয়েছেন ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন এবং অভিষেক বচ্চন। কিন্তু কী সেই মন্ত্র যাতে ধরে রাখা যায় সম্পর্কের বন্ধন? জানালেন বচ্চন বধূ নিজেই।

একে তো সৌন্দর্যের প্রতিমূর্তি, তার উপর টিনসেল নগরীর অন্যতম চর্চিত অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া। ৯০-এর দশকে সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় জিতে বলিউডে পা রেখেছিলেন তিনি। কয়েক বছরের মধ্যেই সমকালীন শীর্ষ অভিনেত্রী হিসেবে জায়গা করে নেন।

‘হাম দিল দে চুকে সানাম’, ‘তাল’, ‘দেবদাস’, ‘গুরু’-র মতো ছবিতে তার উপস্থিতি দর্শকের মন কেড়ে নেয়। তবে, শুধু সফল কর্মজীবন নয়, নায়িকার ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও সম্মান আগ্রহী অনুরাগীরা। সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রীকে তার বিবাহিত জীবন নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “বিশ্বাস রাখুন। হৃদয়, মন, এবং আত্মা সব কিছু দিয়ে ভরসা রাখুন। যেভাবেই হোক শরীরও সেই পথই অনুসরণ করবে! আর হ্যাঁ, নিজের প্রতি নিজে নির্মমভাবে সৎ হন। নিজেই নিজের বন্ধু হন। বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে শিখুন, সেই শিক্ষাই জীবনে পাথেয় হবে।”
তবে বিয়ে নিয়ে যে এ প্রজন্মের মধ্যে এত অবিশ্বাস, অনীহা দেখা দিচ্ছে, সে বিষয়ে কী মত ঐশ্বরিয়ার? জবাবে অভিনেত্রী বলেন, “আপনি বিয়ে বলতে যা বোঝেন বিয়ে আসলে তার চেয়ে অনেক বেশি কিছু। বিদ্বেষীদের বিশ্বাস করবেন না। মানুষ এত দিন ধরে বিয়ে নিয়ে ঠাট্টা-তামাশা করেছে, তাই সহজে ধারণা বদলানো মুশকিল। তবে এটুকু বলতে পারি এতে দারুণ মজা। তবে বিয়ে তখনই করুন, যখন আপনি সঙ্গীকে নিয়ে ৫০০ শতাংশ নিশ্চিত হন। যদি এতটুকুও সংশয় থাকে, অবিশ্বাস থাকে, তা হলে বিয়ে করবেন না।”

মণি রত্নমের ‘পোন্নিয়ান সেলভান-১’-এ খুব শিগগিরই রাজকুমারি নন্দিনির চরিত্রে দেখা যাবে ঐশ্বরিয়াকে। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাবে সেই ছবি। এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী জানান, স্বামী অভিষেকের সঙ্গে ছবি করার ইচ্ছে রয়েছে তার। কিন্তু উপযুক্ত চিত্রনাট্যের অভাবে তা সম্ভব হচ্ছে না।

শেয়ার করুন »

অনলাইন ডেস্ক »

মন্তব্য করুন »

Men who abuse anabolic steroids risk long-term testicular problems even after they quit best australian steroid site anaboteen anabolic duo