নওগাঁয় নারীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার

নওগাঁ প্রতিনিধি

নওগাঁর মহাদেবপুরে নার্গিস বেগম (৪৫) নামে এক নারীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলা সদরের মডেল স্কুল মোড় এলাকার একটি বাসা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহতের স্বজন, স্থানীয় বাসিন্দা ও থানা-পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নিহত নাগির্স বেগম ছোটবেলা থেকেই মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। মানসিক সমস্যার কারণে তার বিয়ে হচ্ছিল না। দুই বছর আগে উপজেলা সদরের ঘোষপাড়া এলাকার বাসিন্দা আনোয়ার হোসেন নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে পারিবারিকভাবে তার বিয়ে হয়। এক মাস আগে লিভার ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে নার্গিসের স্বামী আনোয়ার হোসেন মারা যান। নার্গিস নিঃসন্তান ছিলেন। স্বামীর মৃত্যুর পর তিনি মায়ের সঙ্গে উপজেলা সদরের মডেল স্কুল মোড় এলাকার বাসায় থাকতেন। স্বামীর মৃত্যুর পর তিনি দুইবার আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

ঘটনার দিন ভোরে তার মা ফজরের নামাজ শেষে নিজের ঘরে কোরআন তিলাওয়াত করছিলেন। কোরআন তিলাওয়াত করতে করতে তিনি গোঙানির আওয়াজ শুনতে পান। গোঙানির শব্দ পেয়ে বাড়ির একটি বাথরুমে গিয়ে নার্গিসের রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখেন মা মেরিনা আক্তার। এ সময় তার চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে নার্গিসকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার আগেই ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মহাদেবপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।
মহাদেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রুহুল আমিন বলেন, প্রাথমিক তদন্তে মনে হচ্ছে নার্গিস নিজেই বটি দিয়ে নিজের গলাকেটে আত্মহত্যা করেছেন। যে বটি দিয়ে গলাকাটা হয়েছে সেটি মরদেহের পাশেই পাওয়া গেছে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা হবে। প্রাথমিকভাবে এ ঘটনাকে আত্মহত্যা বলে মনে হলেও বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করা হবে। তদন্তে হত্যাকাণ্ড হিসেবে তথ্য-প্রমাণ পাওয়া গেলে দায়ী ব্যক্তিকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights