‘বাজবল’ ভুলে যাক রুট, পরামর্শ মাইকেল ভনের

অনলাইন ডেস্ক

এবারের ভারত সফরে যেন চেনাই যাচ্ছে না জো রুটকে। দুই টেস্টের চার ইনিংস মিলিয়ে করতে পেরেছেন কেবল ৫২। অচেনা তার ব্যাটিংয়ের ধরনও, শুরু থেকেই খেলছেন উচ্চ ঝুঁকির শট। মাইকেল ভন মনে করছেন এই ‘বাজবল’ ঘরানার ব্যাটিংয়ের জন্যই রানের দেখা মিলছে না তার উত্তরসূরীর ব্যাটে। পরের ম্যাচগুলোতে রুটকে সহজাত ব্যাটিংয়ে ফিরে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন রুট।

চলমান সিরিজের আগে ভারতে রুটের রেকর্ড ছিল দারুণ। ১০ ম্যাচের ২০ ইনিংসে দুই সেঞ্চুরি ও পাঁচ ফিফটিতে করেছিলেন ৯৫২ রান। সর্বোচ্চ ২১৮, গড় ছিল ৫০.১০। চার ইনিংসের ব্যর্থতায় গড় নেমে এসেছে ৪৩.৬৫-এ। অবশ্য এই সময়ে মাত্র পঞ্চম সফরকারী ব্যাটসম্যান হিসেবে ছুঁতে পেরেছেন হাজার রানের সীমানা। তবে এই প্রাপ্তি একদমই ম্লান হয়ে গেছে টানা চার ইনিংসের ব্যর্থতায়। ২৯ রানের ইনিংস দিয়ে শুরু করেছিলেন সফর, পরের ইনিংসে করেন কেবল ২ রান। পরের টেস্টে ৫ রান করার পর পাগলাটে ব্যাটিংয়ে ফেরেন দ্রুত। ক্রিজে গিয়েই খেলেন রিভার্স সুইপ। পাল্টা আক্রমণে ৯ বলে করে ফেলেন ১৬। পরের বলে রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে এগিয়ে এসে স্লগ খেলেন তিনি। ব্যাটের কানায় লেগে ধরা পড়েন ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে। ম্যাচটি ১০৬ রানে হারে ইংল্যান্ড।

ইংল্যান্ডের সবচেয়ে বড় ব্যাটিং ভরসার এভাবে উইকেট বিলিয়ে আসা একদমই পছন্দ হয়নি ভনের। দা টেলিগ্রাফে নিজের কলামে তিনি লিখেছেন, বাজবল ছেড়ে নিজের মতো করে খেলা উচিত রুটের।
তিনি বলেন, ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের দেখে মনে হচ্ছে, ব্যাটিং করার ধরন কেবল একটাই। প্রথম বল থেকেই তারা আক্রমণাত্মক মনোভাবে থাকে। তাদের কয়েকজন এভাবে খেললে আমার আপত্তি নেই, কারণ তারা এই ঘরানাতেই ভালো। কিন্তু জো রুটের এই ধরন ভুলে যেতে হবে। নিজের মতো খেলে টেস্টে ১০ হাজার রান করেছে সে। তার বাজবল অনুসরণ করার দরকার নেই। এখনই সময় ম্যানেজমেন্টের কারো রুটকে অনুরোধ করে বলা- দয়া করে নিজের মতো খেল। আমার মনে হয়, এটা পরিষ্কার যে সে বাজবল এবং এর রোমাঞ্চ ও বিনোদনে খুব বেশি আচ্ছন্ন।

আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি শুরু হবে দুই দলের সিরিজের তৃতীয় টেস্ট। রাজকোটে রুটের কাছ থেকে দায়িত্বশীল ব্যাটিং প্রত্যাশা করবেন ভন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights