কুসিক মেয়র পদে সমর্থন পেলেন এমপি বাহারের মেয়ে সূচনা

কুমিল্লা প্রতিনিধি :

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদে উপনির্বাচনে মহানগর আওয়ামী লীগের সমর্থন পেলেন সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারের মেয়ে তাহসিন বাহার সূচনা। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের জরুরি বর্ধিত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

তাহসিন বাহার সূচনা কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও কুমিল্লা-৬ আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারের বড় মেয়ে ও কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় সভার সভাপতি ও কুমিল্লা-৬ আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার ঘোষণা করেন, কারা কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনের প্রার্থী হতে চান। হাত তুলুন। প্রথমে হাত তোলেন আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা শ্যামল ভট্টাচার্য। তিনি দাঁড়িয়ে জানান প্রার্থী হতে চান। এরপরে দাঁড়ান কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল ইসলাম সেলিম। তিনি দাঁড়িয়ে নিজের মনোনয়ন গ্রহণের কথা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, আমি মনোনয়ন নিলেও হাউস চাইলে আমার ভাতিজি তাহসিন বাহার সূচনাকে সমর্থন দেব। তখন নেতাকর্মীরা সূচনার নামে স্লোগান দিতে থাকে। এসময় জহিরুল ইসলাম সেলিম বলে উঠেন, আমি ভাতিজিকে সমর্থন করে মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিলাম। শ্যামল ভট্টাচার্যও তাহসিম বাহার সূচনাকে সমর্থন দিয়ে একত্রে কাজ করার ঘোষণা দেন। সভার শেষে নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগের সমর্থিত প্রার্থী হিসেবে তাহসিন বাহার সূচনাকে সমর্থন দেন। পরে আওয়ামী লীগের মহানগর সভাপতি ও সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার তার মেয়ে তাহসিন বাহার সূচনার হাত তুলে ধরে মেয়র প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দেন।
বক্তব্যে তাহসিন বাহার সূচনা বলেন, গত দুই নির্বাচনে নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে আওয়ামী লীগের হয়ে কাজ করেছি। তৃণমূলের নেতাকর্মীদের আরও কাছে যেতে পেরেছি। অনেকে প্রবীণ নেতা আছেন যারা আমার বাবার সঙ্গে রাজনীতি করেন তারা সবাই আমাকে সমর্থন দিয়ে কৃতার্থ করেছেন।

আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার বলেন, আমার মেয়ে হিসেবে তার কথা বলছি না। তার ধমনিতে আমার রক্ত আছে তাই আমি বিশ্বাস করি সে আমার মতই জনগণের জন্য কাজ করবে। পৃথিবীর কোন শক্তি নেই তাহসিন বাহার সূচনাকে ঠেকাতে পারে, কারণ সবার সমর্থন তার সাথে।

উল্লেখ্য, ২০২২ সালের ১৫ জুন কুসিকের তৃতীয় নির্বাচনে আরফানুল হক রিফাত মাত্র ৩৪৩ ভোটের ব্যবধানে স্বতন্ত্র প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কুকে হারিয়ে মেয়র নির্বাচিত হন। গত বছরের ১৩ ডিসেম্বর সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মেয়র রিফাতের মৃত্যু হয়। ১৮ ডিসেম্বর মেয়র পদটি শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু হয়। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ১৩ ফেব্রুয়ারি। যাচাই-বাছাই ১৫ ফেব্রুয়ারি। আপিল নিষ্পত্তি ১৯ ও ২০ ফেব্রুয়ারি। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২২ ফেব্রুয়ারি। প্রতীক বরাদ্দ ২৩ ফেব্রুয়ারি। ভোটগ্রহণ ৯ মার্চ। বর্তমানে কুমিল্লা সিটিতে দুই লাখ ৪২ হাজার ভোটার রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights