বরিশালে চালের বাজার চড়া

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল:

বরিশালে চালের বাজারে সু-খবর নেই। আমনের ভরা মৌসুম হলেও চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের চাল। খুচরা বাজারে প্রতি কেজি মিনিকেট ৬৮ টাকা, ২৮ বালাম ৫৫ টাকা, বুলেট (মোটা) চাল ৫০ টাকা, স্বর্না চাল ৫২ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে।

নগরীর ফরিয়াপট্টির খুচরা চাল বিক্রেতা তপন পাল জানান, গত ১৫ দিন ধরে বরিশালে চালের বাজার স্থিতিশীল রয়েছে। তারা আড়ত থেকে যে দামে চাল কেনেন তার সঙ্গে সামান্য লাভ রেখে বিক্রি করেন।

ক্রেতারা জানান, এখন আমনের ভরা মৌসুম। কৃষকের গোলায় ধান। এই সময়ে চালের দাম আরও নিম্নমুখী হওয়ার কথা। কিন্তু বাজারে কারসাজি করে চালের দাম বাড়ানো হয়েছে। চালের দাম কমানোর জন্য তারা সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।
ফরিয়াপট্টির আড়তদার রানা এন্টারপ্রাইজের সত্ত্বাধিকারী মো. রানা বলেন, শুক্রবার ফরিয়াপট্টির সব আড়ত বন্ধ ছিল। সব শেষ বৃহস্পতিবার পাইকারী বাজারে প্রতিকেজি মিনিকেট ৬৪ টাকা, ২৮ বালাম ৫০ থেকে ৫২ টাকা এবং বুলেট চাল প্রতি কেজি ৪৮ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। পাইকারী বাজার থেকে চাল কিনে নিয়ে খুচরা বিক্রেতারা কেজি প্রতি ৫ টাকা লাভে বিক্রি করেন। এ কারণে ভোক্তা পর্যায়ে চালের দাম বেশী।

মো. রানা বলেন, বরিশালের পাইকারী চালের বাজার গত ১৫ দিনেরও বেশি সময় ধরে স্থিতিশীল রয়েছে। বাজার স্থিতিশীল থাকাই চালের বাজারে একটি সু-খবর বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights