বহুমুখী পাটপণ্য উৎপাদনে আরও বৈচিত্র্য আনতে হবে : পাটমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য, বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, ‌‘বহুমুখী পাটপণ্য উৎপাদনে আরও বৈচিত্র্য আনতে হবে। ক্রেতা আকৃষ্ট হয় এমন ডিজাইন উদ্ভাবন করতে হবে।’

আজ সোমবার বিকালে জুট ডাইভারসিফিকেশন প্রমোশন সেন্টারে (জেডিপিসি) বহুমুখী পাটজাত পণ্য প্রদর্শনী পরিদর্শনকালে এসব কথা বলেন তিনি। এসময় জেডিপিসির নির্বাহী পরিচালক (যুগ্মসচিব) গোপাল চন্দ্র দাশসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘সফল রাষ্ট্রনায়ক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাট ও পাটজাত পণ্যে ওপর অনেক গুরুত্ব দিয়েছেন। তা নিশ্চয়ই আপনারা সবাই শুনতে পারছেন, বুঝতে পাচ্ছেন। তিনি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনোত্তর সরকার গঠনের পরে সরকার প্রধান হিসেবে যতগুলো বক্তৃতা দিয়েছেন তাতে পাটের ওপর অতীব গুরুত্ব দিয়েছেন, সাথে সাথে বাংলাদেশের চামড়া শিল্পের ওপরও তিনি অতীব গুরুত্ব দিয়েছেন। পাট সম্পর্কে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বার্তা আপনারা গুরুত্বসহকারে নিবেন। এটা আমি প্রত্যাশা করি। বার্তাটি অনুধাবন করবেন, এটি আমি মনে করি।’
তিনি বলেন, ‘পাট আমাদের প্রধান রপ্তানি পণ্য ছিল কিন্তু আমাদের গর্বের পাট অনেকটা হারিয়ে গিয়েছিল। জুট মিলগুলো বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।জুটমিলের সাথে সম্পৃক্ত হাজার হাজার কর্মকর্তা, শ্রমিক এক অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে গিয়েছিল। আদমজির মতো জুটমিল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। তবে, বর্তমান টেকসই উন্নয়নের যুগে বিশ্বব্যাপী পরিবেশবান্ধব পাট ও পাটপণ্যের ব্যাপক চাহিদা তৈরি হয়েছে। পরিবেশবান্ধব পাটপণ্যের রপ্তানি বাড়াতে সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘পাটের ব্যবহার বহুমুখী করে তৈরি করা হচ্ছে শাড়ি, জুতা, ব্যাগ, পর্দার কাপড়, বেড কভার ইত্যাদি। আমাদের বিজ্ঞানিরা পাটের জীবনরহস্য উদঘাটনের মাধ্যমে পাটের তৈরি সোনালি ব্যাগ তৈরি করতে পেরেছে। পাট থেকে সোনালি ব্যাগের উৎপাদন কত দ্রুত করা যায় সে বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এর মাধ্যমেই পাটশিল্পকে আমরা লাভজনক করতে পারব।’

তিনি বলেন, পাটশিল্পের বেসরকারি খাতের উদ্যোগকে আরো উৎসাহিত করা হবে। আমি মনে করি, আমরা সবাই মিলে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করলে সফল হতে পারব।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights