ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শাশুড়ি-পুত্রবধূকে নির্যাতনের ঘটনায় গ্রেফতার ২

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে বাড়ি উঠানে ফেলে শাশুড়ি ও তার ছেলের বৌকে পিটিয়ে রক্তাক্ত করার ঘটনায় দুই জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ সোমবার ভোরে উপজেলার পত্তন ইউনিয়নের মনিপুর গ্রামের আতকাপাড়া এলাকায় থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন, ওই এলাকার ফিরোজ মিয়ার ছেলে বাক্কু মিয়া (৪০) ও নান্নু মিয়া (৪৫)।

মামলার এজাহার ও থানা সূত্রে জানা যায়, আতকাপাড়া গ্রামের আব্দুল আলীর ছেলে নাসির মিয়া ইটভাটায় কাজ করার সুবাদে চট্টগ্রামে পরিবার নিয়ে বসবাস করতেন। গত দুই মাস আগে নিজের গ্রামে বাড়ি তৈরি করে পরিবার নিয়ে বসবাস শুরু করেন। বাড়িতে তিনি ছাড়াও তার স্ত্রী, স্কুল পড়ুয়া একটি মেয়ে এবং গত ছয় মাস আগে বিয়ে করিয়ে আনা পুত্রবধূ বসবাস করেন। বাড়ির সামনে একটি নালায় স্থানীয় ফিরোজ মিয়ার ছেলে বাক্কু মিয়া, নান্নু মিয়া ও সিরাজ মিয়ার ছেলে মানিক এবং সবুজ বাঁধ তৈরি করে অবৈধ কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ শিকার করে আসছিলেন। গত শনিবার তাদের জালের বাঁধের বাঁশ কে বা কারা নিয়ে যায়। এনিয়ে নাসির মিয়ার পরিবারের সদস্যদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে তারা। এই ঘটনায় প্রতিবাদ করায় বাক্কু মিয়া, নান্নু মিয়া মানিক এবং সবুজ দলবদ্ধ হয়ে নাসিরের বাড়িতে হামলা করে। এসময় বাড়িতে ঢুকে তারা নাসিরের স্ত্রী শিউলি বেগম, তার ছেলের নববধূ শারমিন (২০) ও এক স্কুল পড়ুয়া কন্যাকে উঠানে ফেলে বেধরক মারধর করে ফেলে চলে চলে যায়। পরে তাদেরকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসাধীন আছেন।
বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসাদুল ইসলাম জানান, এই ঘটনায় নাসির মিয়া ছয়জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এ মামলার প্রধান আসামী বাক্কু মিয়াসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights