যৌন নিপীড়নের অভিযোগ : বাধ্যতামূলক ছুটিতে ঢাবি শিক্ষক নাদির জুনাইদ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

নারী শিক্ষার্থীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগের সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের প্রেক্ষিতে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. নাদির জুনাইদকে তিন মাসের জন্য বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠানো হয়েছে। সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দফতর থেকে পাঠানো এক চিঠিতে এ কথা জানানো হয়।

অধ্যাপক নাদির জুনাইদের বিচারের দাবিতে সকালে শিক্ষার্থীরা তালা নিয়ে বিভাগের করিডোরে অবস্থান নেন। এরপর স্লোগান দিতে দিতে প্রথমে তার অফিস এবং পরে তিনটি ক্লাসরুমের দরজায় তালা ঝুলিয়ে দেন। এরপর একটি প্রতিবাদী মিছিল নিয়ে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা। এসময় উপাচার্য শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে বিকেল চারটার মধ্যে চিঠি দেওয়ার আশ্বাস দেন।

গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আবুল মনসুর আহমেদ চিঠি পাঠ করে জানান, সুষ্ঠু তদন্তের প্রেক্ষিতে সব ধরনের একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার জন্য অধ্যাপক নাদির জুনাইদকে তিন মাসের ছুটিতে পাঠানো হয়েছে।
পরবর্তী সিন্ডিকেট সভায় অধ্যাপক নাদির জুনাইদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের তদন্তে কমিটি গঠনসহ অন্যান্য পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানানো হয়।

তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বিভাগের এক শিক্ষার্থী জানায়, বাধ্যতামূলক ছুটি দেওয়াটা প্রশাসনের নেওয়া পদক্ষেপের প্রথম ধাপ মাত্র। আমাদের দাবি লিখিতভাবে নাদির জুনাইদের অব্যাহতি ছিল। তবে সেই দাবি এখনো পূরণ করা হয়নি। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।

আরেকজন শিক্ষার্থী বলেন, উনি যদি ক্যাম্পাসে আসতেনও তাহলেও আমাদের কেউ উনার ক্লাসে অংশ নিতাম না। আমরা তাকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছি। সবসময়ই অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার। শুধু তিন মাস নয়। আমরা চাই এ ধরনের শিক্ষক নামধারী নিপীড়ক যেন আজীবনের জন্য বহিষ্কার হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights