জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনিস্টিউটের ল্যাবরেটরি স্কুল ও কলেজের মাঠ বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য ভাড়া

জুনায়েদ মাসুদ, জবি প্রতিনিধি;

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষা ও গবেষণা ইনিস্টিউটের অধীনে পোগজ ল্যাবরেটরি স্কুল ও কলেজের মাঠ বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য ভাড়া দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। বিশ্ববিদ্যালয় খোলা থাকলেও মাঠে তোলা হয়েছে বিয়ের প্যান্ডেল। বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঠ এভাবে ভাড়া দেওয়ায় শিক্ষার্থীরা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে যানা যায়, সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) রাতে বিয়ের অনুষ্ঠান উপলক্ষে পোগজ মাঠ সাজানো হয়। আলোকসজ্জায় আলোকিত করে ধুমধাম আয়োজনে বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। বিয়ের অনুষ্ঠান চলাকালীন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পোগজে প্রবেশের গেট বন্ধ রাখা হয়।

এর আগেও টাকার বিনিময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঠ ভাড়া দেওয়ার ঘটনা ঘটেছিল বলে জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। তারা বলছেন, এ ধরনের কার্যক্রম বিশ্ববিদ্যালয়ের মানহানির সমতুল্য।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঠ বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য ভাড়া দেওয়া নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেছে শিক্ষার্থীদের। বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো একটি জায়গাকে ‘সস্তা’ না করার দাবি জানিয়েছেন তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা বিভাগের শিক্ষার্থী জুনায়েদ হাবিব বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঠ কোনোভাবেই বিয়ের অনুষ্ঠানের জায়গা হতে পারে না। যেখানে সন্ধ্যায় খেলাধুলা বন্ধ থাকে, সেখানে রাতে বিয়ের অনুষ্ঠান কোনোভাবেই মানানসই নয়। প্রশাসনের অবহেলায় এখন খেলার মাঠকে কমিউনিটি সেন্টারে পরিণত হয়েছে। খেলার মাঠে খেলাধুলা না করে বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য বরাদ্দ করা হচ্ছে।

মার্কেটিং বিভাগের মুসফিকুর রহমান বলেন, পোগজ ল্যাবরেটরি স্কুলের প্রধান শিক্ষকের এমন উদ্ভট কর্মকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্পদ বহিরাগতদের কাছে ভাড়া দেওয়া শোভনীয় নয়। এটি দৃষ্টিকটূ কাজ। অথচ আমরা দেখলাম, স্কুলের প্রধান শিক্ষক বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থান বিয়ের জন্য ভাড়া দিয়েছেন। যেখানে আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা খেলাধুলা বা অনুষ্ঠান করার জন্য পর্যাপ্ত জায়গা পাই না, সেখানে তিনি কীভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের জায়গা এভাবে পাবলিক প্রোগ্রামের জন্য ভাড়া দেন?

শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিউটের শিক্ষার্থী ইমরান তালুকদার পলিন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের অধীনে পোগোজ ল্যাবরেটরি স্কুলের মাঠ নিয়মিত বিয়ে ও বিভিন্ন অনুষ্ঠানের জন্য ভাড়া দেন পোগোজ ল্যাবরেটরি স্কুলের প্রধান শিক্ষক। কাগজে-কলমে পোগোজ স্কুল জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের অধীনে হলেও কাজে পোগোজ ল্যাবরেটরি স্কুল বিশ্ববিদ্যালয় ও শিক্ষা গবেষণা ইনস্টিটিউটের মান বজায় রাখতে ব্যর্থ। ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতিতে জর্জরিত পুরাতন ঢাকার ঐতিহ্যবাহী এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি। অথচ এখানে হওয়ার কথা ছিল রিসার্চ ফেয়ার বসন্ত উৎসব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights