নোয়াখালীতে পাইপগান-এলজি সহ ৪ যুবক গ্রেফতার

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলায় পৃথক অভিযান চালিয়ে আগ্নেয়াস্ত্রসহ চার অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি দেশীয় তৈরী পাইপগান, একটি এলজি, তিনটি মোবাইল ও একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।

রোববার (২৫ ডিসেম্বর) সকালে আসামিদের নোয়াখালী চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে। গতাকল শনিবার ২৪ ডিসেম্বর রাতে তিন সন্ত্রাসীকে গ্রেফতারের বিষয়টি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায় র‍্যাব-১১। এর আগে, আগে একই দিন সন্ধ্যায় এক অস্ত্রধারীকে গ্রেফতারের বিষয়টি জানায় জেলা পুলিশ প্রশাসন।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, উপজেলার ৫নং ছয়ানী ইউনিয়নের আমিরপুর এলাকার মো.শাহজাহানের ছেলে মো.রিশাত (২১), চৌমুহনী পৌরসভার উত্তর নাজিরপুর এলাকার এমাম হোসেন এমাম হোসেনের ছেলে মো.শাহাদাত হোসেন (২৮), চৌমুহনী পৌরসভার আলীপুর এলাকার মো.আবদুর রহিমের ছেলে মো.ইউসুফ হোসেন মিলন (২৩) ও ছয়ানী ইউনিয়নের ৬নম্বর ওয়ার্ডের কালিকাপুর গ্রামের নাটুয়ার বাড়ির জহিরুল ইসলামের ছেলে মো.মারুফ হোসেন (২০)।

র‍্যাব-১১ এর সিপিসি-৩ নোয়াখালী কার্যালয়ের কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার মাহমুদুল হাসান বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার রাতে উপজেলার ১নং আমানউল্লাহপুর ইউনিয়নের আমিন বাজারের সামনে লক্ষ্মীপুর টু নোয়াখালী আঞ্চলিক সড়কে অভিযান চালিয়ে অস্ত্রধারী তিন সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করা হয়। এ সম তাদের থেকে একটি এলজি, তিনটি মোবাইল ও একটি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়। প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত আসামিরা এলাকায় মারামারি, দাঙ্গা-হাঙ্গামা সহ বিভিন্ন অপকর্মের সাথে জড়িত।

নোয়াখালীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো.শহীদুল ইসলাম বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল শনিবার দুপুর ২টার দিকে উপজেলার ছয়ানী ইউনিয়নের ৫নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম খালিশপুর গ্রামের কাজী ছেলামত উল্যার বাগানে অভিযান চালিয়ে দেশীয় পাইপগান সহ এক যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ ঘটনায় অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। ওই মামলায় আসামিকে নোয়াখালী চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *