অজগরের পেটে মিলল নিখোঁজ নারীর মরদেহ

ঘটনাটি ইন্দোনেশিয়ার দক্ষিণ সুলায়েসি প্রদেশের কালেম্পাংয়ের। সেখানে তিনদিন ধরে নিখোঁজ ছিলেন এক নারী। দীর্ঘ সময় পর তার সন্ধান মিলেছে। তবে তা যেনতন কোনো জায়গায় নয়, ওই নারীর খোঁজ মিলেছে আস্ত এক অজগরের পেটের ভেতরে। শনিবার স্থানীয়রা ওই নারীকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করেন। রবিবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে সিবিএস নিউজ।

বলা হয়েছে, অজগরের পেট থেকে নারীর দেহ উদ্ধারের ঘটনায় হুলুস্থুল পড়ে গেছে। এ ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন স্থানীয়রা। স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে, দক্ষিণ সুলায়েসি প্রদেশের কালেম্পাংয়েন এ ঘটনায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। ১৬ ফুটের একটি অজগরের পেট থেকে ওই নারীর দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধার হওয়া ওই নারীর নাম ফরিদা।

কালেম্পাং গ্রামের প্রধান সুয়ার্দি রোসি এএফপিকে জানান, ফরিদা বৃহস্পতিবার রাতে নিখোঁজ হন। রাতে বাসায় না ফেরায় তার খোঁজ শুরু করা হয়। এমনকি শুক্রবার সারাদিনেও তার খোঁজ মেলেনি। এ ঘটনায় পুলিশে নিখোঁজ ডায়েরিও করা হয়।
তিনি জানান, শনিবার সকালে বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে জঙ্গলে ফরিদার কিছু জিনিস পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। তখন স্থানীয়দের সন্দেহ হয়। এরপর জঙ্গলে ঢুকতেই তারা বিরাট অজগর দেখতে পান। এ সময় এটির নড়াচড়ার মতো অবস্থাও ছিল না। এতে গ্রামবাসীর সন্দেহ আরও দৃঢ় হয়। পরে গ্রামবাসীরা অজগরের পেট কেটে ফেলার সিদ্ধান্ত নেন। আর পেট কাটতেই সেখানে ফরিদার দেহের সন্ধান মেলে।

বন অধিদপ্তর জানিয়েছে, এ ধরনের ঘটনা খুবই বিরল। তবে সাম্প্রতিক অতীতে এমন বেশ কয়েকটি ঘটনা ঘটেছে। গত বছর প্রদেশের তিনানগিয়ো জেলায় অজগরের পেট থেকে এক কৃষকের দেহ উদ্ধার করা জয়। এ ছাড়া ২০১৮ সালে দক্ষিণপূর্ব সুলায়েসির মুনা শহরে অজগরের পেট থেকে এক নারীর দেহ উদ্ধার করা হয়েছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights