নিজের উদ্ভাবিত চিকিৎসা পদ্ধতিতেই ক্যানসারমুক্ত হলেন চিকিৎসক

অনলাইন ডেস্ক

রিচার্ড স্কোলিয়ার। তিনি একজন অস্ট্রেলিয়ান চিকিৎসক। ক্যানসারের চিকিৎসা উদ্ভাবনে যার গুরুত্বপূর্ণ অবদান আছে। এবার সবাইকে তিনি চমকে দিয়েছেন। যে চমক ডেকে এনেছে এক নতুন খুশির খবরও। নিজের উদ্ভাবন করা চিকিৎসা পদ্ধতি ব্যবহার করেই তিনি ক্যানসার জয় করার দাবি করেছেন।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে স্কোলিয়ার এমন এক ধরনের জটিল ক্যানসারে আক্রান্ত ছিলেন যাতে রোগীরা সাধারণত এক বছরেরও কম সময়েই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে।

তবে নিজের উদ্ভাবিত নতুন চিকিৎসাপদ্ধতি রিচার্ড স্কোলিয়ার এক বছরের বেশি সময় ধরে ক্যানসারমুক্ত আছেন।
অধ্যাপক স্কোলিয়ার গ্লায়োব্লাস্টোমার নামে ক্যানসারে আক্রান্ত হয়েছিলেন। তবে নিজের উদ্ভাবিত পদ্ধতি ব্যবহার করে চিকিৎসা করায় সুফল মিলেছে। আজ মঙ্গলবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে দেওয়া এক পোস্টে স্কোলিয়ার জানিয়েছেন, এমআরআই পরীক্ষায় দেখা গেছে নতুন করে টিউমারটি ফিরে আসেনি।

এমন ঘটনায় তিনি বেশ আনন্দিত।

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন রোগতত্ত্ববিদ চিকিৎসক স্কোলিয়ার ক্যানসারের চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন। তার কাজের স্বীকৃতি হিসেবে চলতি বছর স্কোলিয়ার এবং তাঁর সহকর্মী ও বন্ধু জর্জিনা লংকে অস্ট্রেলিয়ান অব দ্য ইয়ার ঘোষণা করা হয়েছে।

মেলানোমা ইনস্টিটিউট অস্ট্রেলিয়ার সহপরিচালকেরা এক দশক ধরে ইমিউনোথেরাপি নিয়ে গবেষণা করছেন। এ পদ্ধতিতে শরীরের রোগ প্রতিরোধব্যবস্থা (ইমিউন সিস্টেম) ব্যবহার করে ক্যানসার কোষকে আক্রমণ করা হয়। বিশ্বজুড়ে ক্যানসারের শেষ ধাপে থাকা রোগীদের মধ্যে এ পদ্ধতি ব্যবহার করে উল্লেখজনক সাফল্য পাওয়া গেছে। আক্রান্ত ব্যক্তিদের অর্ধেক এখন নিরাময় পাচ্ছে। আগে এ হার ১০ শতাংশের কম ছিল।

স্কোলিয়ারের মস্তিষ্কের ক্যানসার সারানোর চেষ্টায় এ পদ্ধতিই ব্যবহার করেছেন অধ্যাপক লংসহ চিকিৎসকদের একটি দল। অধ্যাপক স্কোলিয়ার হলেন মস্তিষ্কের ক্যানসারে আক্রান্ত প্রথম রোগী যার চিকিৎসায় এ পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়েছে।

মেলানোমা ইনস্টিটিউট অস্ট্রেলিয়াতে অধ্যাপক লং এবং তাঁর চিকিৎসক দল গবেষণা করে দেখেছে, কয়েকটি ওষুধের সংমিশ্রণ ঘটিয়ে ইমিউনোথেরাপি দেওয়া হলে তা অপেক্ষাকৃত ভালো কাজ করে। উমার অপসারণের জন্য কোনো অস্ত্রোপচারের আগে এ পদ্ধতি ব্যবহার করতে হয়।

স্কোলিয়ারই প্রথম রোগী যাকে টিউমারের বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী বিশেষ ধরনের টিকা দেওয়া হয়েছে। এতে ওষুধের ক্যানসার শনাক্ত করার ক্ষমতা বেড়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights