লক্ষ্মীপুরে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১১১১ জন

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:
লক্ষ্মীপুরে এবার এসএসসি ও সমমানের দাখিল এবং ভোকেশনাল পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছে ১১১১ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে জেলার ৫টি উপজেলার ১৮৩টি স্কুল থেকে ১৬১২৪ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে উত্তীর্ণ হন ১২৭৬১ জন। জিপি-এ ৫ পেয়েছেন ৭৮৪ জন। এদিকে ১৪১টি মাদ্রাসা থেকে দাখিলে ৬২৮৮ জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়ে উত্তীর্ণ হন ৫৩২৪ জন। এসব মাদ্রাসায় ৩০৭ জন শিক্ষার্থী জিপি-এ ৫ পেয়েছেন। জেলার এসব স্কুলে পাশের হার ৭৯.১৪ শতাংশ আর মাদ্রাসায় পাশের হার ৮৪.৬৬শতাংশ ও ভোকেশনালে পাশের হার ৯২.৪৯ শতাংশ।

রবিবার বিকেলে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা শিক্ষা অফিসার গৌতম চন্দ্র মিত্র।

জেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, লক্ষ্মীপুর সদরে ৮০ টি স্কুল থেকে মোট এস এসসি পরীক্ষা দিয়েছেন ৭১৫০ জন শিক্ষার্থী। উত্তীর্ণ হয়েছে ৬০৭৩ জন। এরমধ্যে জিপি এ-৫ পেয়েছে ৪১৫ জন, এ উপজেলায় এবার পাশের হার ৮৪.৯৩ শতাংশ। এর মধ্যে চন্দ্রগঞ্জের প্রতাপগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ৭২ জন, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ৬৮ ও আদর্শ সামাদ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ৫৭ জন জিপি-এ ৫ পেয়েছেন। সদরে ৬৩টি মাদ্রাসা থেকে দাখিল পরীক্ষা দিয়েছেন ২৯৭০ জন, উত্তীর্ণ হয়েছে ২৬৯২ জন। জিপি এ-৫ পেয়েছে ২৩৪ জন। পাশের হার ৯০.৬১ শতাংশ। এর মধ্যে টুমচর ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা থেকে ৪৩, আয়েশা (রা:) মহিলা কামিল মাদ্রাসা থেকে ৩২, লক্ষ্মীপুর দারুল উলুম কামিল মাদ্রাসা থেকে ২২ ও ভবানীগঞ্জ কেরামতিয়া মাদ্রাসা থেকে ২২ জন জিপি-এ ৫ পেয়েছেন।
এদিকে, জেলার রায়পুর উপজেলায় ৩০টি স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষা দেন ২৪৮০ জন, উত্তীর্ণ হয়েছেন ২০৯০ জন, জিপিএ-৫ পেয়েছেন ১৪১ জন। কাজী ফারুকী স্কুল এন্ড কলেজ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৩৫ জন শিক্ষার্থী। পাসের হার ৮৪.২৭ শতাংশ, ২১টি মাদ্রাসা থেকে দাখিল পরীক্ষা দেন ৯০১ জন, উত্তীর্ণ হন ৭৯৮ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৩৯ জন। পাসের হার ৮৮.৫৭ শতাংশ।

জেলার রামগঞ্জ উপজেলায় ৩৫ টি স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষা দেন ২৮৪৭জন, উত্তীর্ণ হয়েছেন ২২০৯ জন, জিপিএ-৫ পেয়েছেন ১৫৭ জন। পাসের হার ৭৭.৫৯ শতাংশ। ৩০টি মাদ্রাসা থেকে পরীক্ষা দেন ১২৫২ জন। উত্তীর্ণ হয়েছেন ১০৭৮ জন, জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৩০ জন। পাসের হার ৮৬.১০ শতাংশ।

কমলনগর উপজেলায় ১৯টি স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষা দেন ১৩৬৭ জন, উত্তীর্ণ হয়েছেন ৭৪২ জন, জিপিএ-৫ পেয়েছেন ২৭ জন। পাসের হার ৫৪.২৮ শতাংশ। ১৪টি মাদ্রাসা থেকে পরীক্ষা দেন ৫১৭ জন। উত্তীর্ণ হয়েছেন ২৬১ জন, জিপিএ-৫ পেয়েছেন ১ জন। পাসের হার ৫৮.৪৮ শতাংশ।

রামগতি উপজেলায় ১৯টি স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষা দেন ২২৮০ জন, উত্তীর্ণ হয়েছেন ১৬৪৭ জন, জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৪৪ জন। পাসের হার ৭২.২৪ শতাংশ। ১৩টি মাদ্রাসা থেকে পরীক্ষা দেন ৬৪৮জন। উত্তীর্ণ হয়েছেন ৪৯৬ জন, জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৩ জন। পাসের হার ৭৩.৫৪ শতাংশ।

অপরদিকে জেলায় এবার ভোকেশনাল পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন ৮২৬ জন শিক্ষার্থী, এদের মধ্যে ৭৬৪ জন উত্তীর্ণ হন জিপিএ-৫ পেয়েছেন ২০ জন। পাসের হার ৯২.৪৯ শতাংশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights